x 
Empty Product

 প্রতিবছর মধু মাস এলেই অসাধু ব্যবসায়ীরা সক্রিয় হয়ে ওঠে। অধিক মুনাফার আশায় রাসায়নিক দ্রব্য মিশিয়ে বিক্রি করে। রাসায়নিক পদার্থ মেশানোয় অপরিপক্ব ফল দ্রুত পাকে। আর এই পাকা ফল দেখে যে কেউ লোভে পড়ে যান। তবে যখন কিনে বাসায় যান তখন বুঝতে পারেন তাকে ঠকানো হয়েছে। এ বছরও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। গোটা রাজধানী এখন রসালো আমে সয়লাব। তবে এসব আম সত্যিকারের পাকা নয়। তাকে বিশেষ ব্যবস্থায় পাকানো হয়েছে। বিএসটিআই জানিয়েছে প্রতি বছর আমে কার্বাইড দিয়ে পাকানো হলেও এবার এর সঙ্গে যোগ হয়েছে

এই মধু মাসেও মৌসুমী ফল পাকানো হচ্ছে রাসায়নিক দ্রব্য দিয়ে। যেন না পচে এ জন্য আম, আপেল, আঙ্গুরসহ বিভিন্ন ফল ফরমালিন ও কার্বাইড দিয়ে মাসের পর মাস রেখে বাজারজাত করছে একশ্রেণীর অতি মুনাফালোভী অসাধু ব্যবসায়ী। মানুষ গাঁটের পয়সা খরচ করে নিয়মিত কিনে খাচ্ছে ‘ফল’ নামের এই বিষ।  ঢাকা ও চট্টগ্রামে গতকাল মঙ্গলবার বিষাক্ত ক্যালসিয়াম কার্বাইড ও ফরমালিন মিশ্রিত বিপুল পরিমাণ আম ও অন্যান্য ফল ধ্বংস করেছে মোবাইল কোর্ট। এজন্য আগোরা, প্রিন্স বাজারসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে কোর্ট।

আমের রাজ্য চাঁপাইনবাবগঞ্জেই রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে আম পাকানোর ফলে মানুষজন আতংকের মধ্যে রয়েছে। কেমিক্যালের ভয়ে অনেক বিত্তশালী বাজার থেকে আম কেনা ছেড়ে দিয়ে বাগানের দিকে ছুটছেন। কিন্তু মধ্যবিত্ত ও নিম্ন আয়ের মানুষ পড়েছে বিপাকে। তারা না পারছে বাগানে গিয়ে বেশি দামে আম কিনতে আর না পারছে ছেলে-মেয়েদের রাসায়নিকমুক্ত আম খাওয়াতে। ফলে একরকম বাধ্য হয়েই তারা রাসায়নিকযুক্ত আম কিনে নিয়ে যাচ্ছেন তবে পরিমাণে কম। কথা হয় পুরাতন বাজারে আম কিনতে আসা সরকারী কর্মচারী আব্দুল হান্নানের

চট্টগ্রাম নগরীর ফিরিঙ্গিবাজার এলাকা থেকে ফরমালিন মেশানো ৩০ মণ আম জব্দ করে সেগুলো ধ্বংস করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এসময় ফরমালিন মেশানো আম বিক্রির দায়ে মদিনা ফার্ম নামে একটি ফলের আড়তকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত।

সোমবার চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ম্যাজিস্ট্রেট জয়নাল আবেদিন ফিরিঙ্গিবাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান পরিচালনা করেন।

ফরমালিন ও ক্যালসিয়াম কার্বাইড মিশ্রিত আমে সয়লাব হয়ে গেছে রাজধানীর ফলের বাজার। কলাতেও রাসায়নিক দ্রব্য মেশানো থেমে নেই। গতকাল সোমবার তিনটি ভ্রাম্যমাণ আদালত নগরীর তিনটি আড়তে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ১৬টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা এবং বিপুল পরিমাণ বিষাক্ত ফল ধ্বংস করে।

সূত্র জানায়, নিয়মিত কার্যক্রমে অংশ হিসেবে গতকাল ঢাকা জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ স্ট্যান্ডর্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)-এর উদ্যোগে তিনটি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসব আদালত জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিএসটিআই-এর পরিদর্শক এবং মহানগর পুলিশের সমন্বয়ে পরিচালনা করা হয়ে থাকে।

এসেছে মধু মাস। পাকা আম, কাঁঠালের গন্ধে চারদিকে মৌ মৌ করছে। রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কের ১ কিলোমিটার রাস্তা জুড়ে অবস্থিত বৃহত্তর বানেশ্বর হাট-বাজারে এসেছে হরেক রকমের আম। কোনোটা হলুদ, কোনোটা হলুদ-সবুজ, কোনোটাবা কাঁচা। কোনোটা ছোট, কোনোটা বড়। কোনোটা ভালো, কোনোটা বিষযুক্ত। বিষযুক্ত শুনে চমকে ওঠলেন। হ্যাঁ, পুঠিয়ার বৃহত্তর বানেশ্বর বাজারে এখন মিলছে বিষযুক্ত আম।

গ্রামীনফোন সেলবাজারে ঢুকে দেখি ৬৫/-টাকা কেজি দরে বাগানের বিষমুক্ত আম বিক্রি হচ্ছে।
 ফোন করলাম। জানতে চাইলাম, "কিভাবে আম পাবো?"
 অপর প্রান্ত রাজশাহী থেকে হুমায়ুন ভাই বললেন, "ভাই আমি আপনার সাথে রাতে কথা বলবো" অপেক্ষায় থাকলাম।

 এক সময় ঠিকই হুমায়ুন ভাইয়ের ফোন আসলো।

দেশের অন্যতম চেইনশপ আগোরারবিরুদ্ধে মামলা ও জরিমানা করার পরও ক্রেতাদের সাথে তাদের  প্রতারণা থেমে নেই।
বিভিন্ন অপরাধে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, কনজ্যুমার অ্যাসেসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) ও বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউটের (বিএসটিআই ) ভ্রাম্যমাণ আদালত আগোরাকে জরিমানা করলেও প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাদের ঘুম ভাঙছে না।

মেহেরপুর শহরের নতুন বাস টামিনাল থেকে লক্ষাধিক টাকার ফরমিনিল মেশানো আম, ফরমিনিল ও ফরমিনিল স্প্রে’র যন্ত্র আটক করেছে গাংনী র‌্যাব-৬। আজ মঙ্গলবার বিকালে গাংনী র‌্যাব -৬ এর কমান্ডার সাজ্জাদ রায়হান গোপান সংবাদের ভিত্তিতে মেহেরপুর শহরের নতুন টার্মিনালে আমে ফরমালিন স্প্রে’র করা হচ্ছে খবর পেয়ে র‌্যাব কমান্ডার সাজ্জাদ রায়হান এর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে লক্ষাধিক টাকার আম, ফরামালিন, স্প্রে’র যন্ত্র সহ আম মালিক মেহেরপুর শহরের হোটেলবাজারের কুদ্দুস হাজির ছেলে শাহীন (৩২) কে আটক কের । মেহেরপুর নির্বাহী

শহরের বিভিন্ন দোকান ও আড়তে মৌসুমী রসালো ফল আম বিক্রি ধুম পড়েছে । কিন্তু এসব আম তরতাজা, দীর্ঘদিন রেখে বিক্রি ও পচন থেকে রক্ষা করতে ব্যবহার করা হচ্ছে বিষাক্ত ফরমালিন । সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের ভেজাল বিরোধী অভিযান ঝিমিয়ে পড়ায় এক শ্রেণীর অসাধু বিক্রেতা আমের সাথে ফরমালিন সহ বিভিন্ন বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশিয়ে বিক্রি করছে । রাজশাহী, বান্দরবান ও মিয়ানমার থেকে আনা আমের মজুদ র্দীঘদিন সতেজ রাখার জন্য তারা এ অপকৌশলের আশ্রয় নিচ্ছে। ফলে ক্রেতারা বুঝতে পারছে না ফরমালিন মুক্ত আমের স্বাদ । এ রকম

Page 52 of 52