x 
Empty Product
Monday, 12 April 2021 08:26

মধু মহালাহা হপার পোকা সম্পর্কে জানুন

Written by 
Rate this item
(0 votes)

ফসল : আম

পোকার নাম : হপার পোকা

পোকার স্থানীয় নাম : : শোষক পোকা

পোকা চেনার উপায় : গাছের নীচ দিয়ে হাটলে পোকা লাফিয়ে লাফিয়ে গায়ে পড়বে।

ক্ষতির ধরণ : গাছের কচি পাতা ও ডগার রস চুষে খায়। এ পোকা তাদের দেহের ওজন এর ২০ গুন পরিমান রস খেয়ে আঠালো রস দেয় যা মধুরস নামে পরিচিত এবং গাছের মুকুল, পাতা ও কান্ডে এই রস জমা হয়ে থাকে এবং যার উপর এক প্রকার ছত্রাক (শুটি মোল্ড) জন্মায়। এটি মারাত্মক ক্ষতি করে, গাছের বৃদ্ধি কমে যায়।

আক্রমণের পর্যায় : কুশি, চারা, ফলের বাড়ন্ত পর্যায়

ফসলের যে অংশে আক্রমণ করে : কাণ্ড , পাতা , ডগা

পোকার যেসব স্তর ক্ষতি করে : পূর্ণ বয়স্ক , নিম্ফ

ব্যবস্থাপনা :

আমের মুকুল যখন ২ থেকে ৩ ইঞ্চি লম্বা হয় তখন প্রথমবার এবং আম যখন মটর দানার মতো আকার ধারণ করে তখন দ্বিতীয়বার সাইপারমেথ্রিন জাতীয় কীটনাশক (রিপকর্ড বা সিমবুস বা ফেনম বা এরিভো ১০ ইসি  ১০ মিলিলিটার ) ১০লিটার পানিতে মিশিয়ে পুরো গাছে স্প্রে করতে হবে। আমের হপার পোকার কারণে যেহেতু সুটিমোল্ড বা ঝুল রোগের আক্রমণ ঘটে তাই রোগ দমনের সালফার জাতীয় ছত্রাকনাশক যেমন: কুমুলাস ডিএফ ৪০ গ্রাম ১০ লিটার বা থিওভিট ৪০ গ্রাম ১০ লিটার পানিতে মিশিয়ে) ১০ দিন পর পর ২-৩ বার শেষ বিকেলের দিকে স্প্রে করুন।ঔষধ স্প্রে করায় সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

 

বালাইনাশক সম্পর্কে  বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

 

বালাইনাশক ব্যবহারে সতর্কতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

 

পূর্ব-প্রস্তুতি :

গাছের অতিরিক্ত ডালপালা ছাটাই করে প্রচুর পরিমান আলো বাতাস এর বাবস্থা করতে হবে।

তথ্যের উৎস :

 সমন্বিত বালাই ব্যবস্থাপনা ও বিভিন্ন ফসলের ক্ষতিকারক পোকামাকড় দমন, কীটতত্ত্ব বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, ২০১৭।


এই নিউজটির মুল লিখা আমাদের না। আমচাষী ভাইদের সুবিধার্তে এটি কপি করে আমাদের এখানে পোস্ট করা হয়েছে। এই নিউজটির সকল ক্রেডিট: http://aisekrishi.org/Pests/view/238

Read 191 times

Leave a comment

Make sure you enter the (*) required information where indicated. HTML code is not allowed.