x 
Empty Product

বড়কুঠি নদীর ধার

User Rating:  / 0
PoorBest 

রাজশাহী মহানগরীর অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র বড়কুঠিতে ‍উন্নয়নের নতুন ধারা সংযোজিত হয়েছে। বর্তমানে বড়কুঠিতে ওয়াই-ফাই জোন প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজামান লিটনের একান্ত আন্তরিকতা ও প্রচেষ্টার ফসল হলো এই ওয়াই-ফাই জোন। এই ওয়াই-ফাই

রাজশাহী মহানগরীর অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র বড়কুঠিতে ‍উন্নয়নের নতুন ধারা সংযোজিত হয়েছে। বর্তমানে বড়কুঠিতে ওয়াই-ফাই জোন প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজামান লিটনের একান্ত আন্তরিকতা ও প্রচেষ্টার ফসল হলো এই ওয়াই-ফাই জোন। এই ওয়াই-ফাই

জোনে সেন্ট্রাল পয়েন্ট হতে চারিদেকে ২০০০ বর্গ ফিট পর্যন্ত দ্রুত গতির ইন্টারন্টে সুবিধা সংযোজিত হয়েছে।এই সুবিধা সকাল ৬.০০টা হতে রাত্রি ১১.০০টা পর্যন্ত পাওয়া যাবে। এই কারনে বড়কুঠিতে সকল বয়সী বিশেষ করে তরুন-তরুনীদের মাঝে ব্যাপক উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। কারন তারা বিনা খরচে ইন্টারনেট এবং ফেসবুক ব্যবহার করতে পারছে। এছাড়া তারা জরুরী ভিত্তিতে বিভিন্ন পরীক্ষার ফলাফল দেখা, অন লাইনে ভর্তি পরীক্ষার ফরম পূরণ, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রয়োজনীয় বই, আউট সোর্সিং এর মাধ্যমে অর্থ উপার্জন ও অন্যান্য তথ্যাদি ডাউনলোড করতে পারছে। এছাড়া তারা পদ্মার ধারে নির্মল পরিবেশে বসে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের উত্তেজনাপূর্ণ খেলা যেমন ক্রিকেট, ফুটবল ইত্যাদি উপভোগ করতে পারছে। এজন্য তাদের ব্যায়বহুল মডেম ব্যবহারের প্রয়োজন হচ্ছেনা, এতে তারা ভীষণ খুশি। এছাড়া বর্তামনে বড় কুঠিকে রূপলাইট ও গার্ডেন ল্যাম্প দিয়ে সুসজ্জিত করা হয়েছে। ফলে রাতে এক অভূতপূর্ব পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে যা কেবল বিশ্বের উন্নত দেশেগুলোতে দৃশ্যমান হয়। বিদেশী পর্যটকরাও বড়কুঠির মনোরম পরিবেশ দেখে মুগ্ধ। তারা অবসর পেলেই ছুটে আসে পদ্মার কোলঘেসে মনোরম পরিবেশ বেষ্ঠিত এই বড়কুঠিতে মানসিক প্রশান্তির জন্য।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found