x 
Empty Product

তোতাপুরী

User Rating:  / 2
PoorBest 

মধ্য মৌসুমি জাতের আম। জুনের মাঝামাঝি পাকা শুরু হবে, জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত পাওয়া যাবে। তোতাপুরী আমের আকার দুই ধরনের। ছোট এবং বড়।

মধ্য মৌসুমি জাতের আম। জুনের মাঝামাঝি পাকা শুরু হবে, জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত পাওয়া যাবে। তোতাপুরী আমের আকার দুই ধরনের। ছোট এবং বড়।

ছোট আকৃতির ওজন ২০০ গ্রাম। বড় আকৃতির তোতাপুরী ৩০০ থেকে ৩৫০ গ্রাম। আমটির বোঁটা শক্ত, ত্বক মসৃণ। পাকলে বোঁটার আশেপাশের অংশজুড়ে লাল এবং ত্বকের সামান্য অন্যান্য অংশ হলূদ বর্ণ ধারণ করে। আমটির গড়নে একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য রয়েছে। ফলটির বোটার দিকটা এবং নিন্মাংশ ছুঁচলো। পেটের এবং পিঠের অংশ বেশ মোটা এবং স্ফীত। আমের খোসা পাতলা, শাঁস কমলাভ। ফলটি সুগন্ধযুক্ত, রসাল, সুমিষ্ট এবং সুস্বাদু। আটিতে কোনো আশ নেই। লম্বা এবং সামান্য মোটা। দুধেভাতে খেতে অত্যন্ত মজাদার। রাজশাহী জেলার চারঘাট, বাঘা এলাকায় বেশি জন্মে। এছাড়া রাজশাহীর পবা, বোয়ালিয়া, রাজপাড়া, শাহমখদুম, পুঠিয়া থানা এলাকায় এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলাতেও আমটির চাষ হয়ে থাকে। আমটি বাণিজ্যিকভাবে সফল। ঢাকা, চট্টগ্রাম সিলেট অঞ্চলে ফলটি ইদানিং যেতে শুরু করেছে। চাহিদার তুলনায় উৎপাদন অনেক কম। তোতাপুরী আমের আদি নিবাস তামিলনাড়–তে। কর্নাটকে এর নাম বাঙ্গালোরা। ভারতের এই এলাকা দুটির তোতাপুরী আম আকারে বেশ বড় হয়।

 

 

 

আরও কিছু ছবিঃ

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found