x 
Empty Product

রাণী পছন্দ

User Rating:  / 2
PoorBest 

মুর্শিদাবাদের নবাবগণের এবং কাশিম বাজারের রানির পৃষ্ঠপোষকতায় উদ্ভাবিত। অতি উৎকৃষ্ট অভিজাত শ্রেনীর আমের তালিকায় রানিপছন্দ অনায়াসে স্থান করে নিয়েছে এর অতুলনীয় গুনাগুনের কারণে।

মুর্শিদাবাদের নবাবগণের এবং কাশিম বাজারের রানির পৃষ্ঠপোষকতায় উদ্ভাবিত। অতি উৎকৃষ্ট অভিজাত শ্রেনীর আমের তালিকায় রানিপছন্দ অনায়াসে স্থান করে নিয়েছে এর অতুলনীয় গুনাগুনের কারণে।

আমটি আশু বা আগাম জাতের। আকারে ছোট, গোলকার। ফলটির বোঁটা শক্ত পাকলে আকর্ষনীয় হলুদ রং ধারন করে। সুমিষ্ট ও সুগন্ধযুক্ত এই আমটিতে কোনো আঁশ নেই। রসাল খোসা পাতলা ও ত্বক মসৃণ। আমটি কেটে খাবার উপযোগী নয়। পাকার পর খোসা ছাড়ালেআটি থেকে এমনিতেই শাস বেরিয়ে আসবে। এর শাসের রং কমলাভ। মিষ্টতা গোপালভোগ আমের কাছাকাছি। উত্তর প্রদেশের বিখ্যাত আনোয়ার রাতাউল আমের মতো অনেকটা দেখতে এই রানি পছন্দ। আমটি গাছ থেকে সংগ্রহের পর ৭-৮ দিনের মধ্যে পাক ধরে। এতে খাদ্যের পরিমাণ রয়েছে শতকরা ৬৫ ভাগ। প্রতিটির গড় ওজন ১৬৫ গ্রাম। একেকটি গাছে প্রচুর আম ধরে এবং প্রায় প্রতি বছরেই ফল আসে। দিনে দিনে আমটির বাণিজ্যিক সফলতা বেড়েই চলেছে। বাজারে এর প্রচুর চাহিদা। রাজশাহীতে সকল শ্রেণীর মানুষের কাছে অত্যন্ত প্রিয় এই আমটি। দেশের অন্যান্য অঞ্চলেও এর চাহিদা বেড়ে চলেছে। চাপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী, নওগা ও নাটোর জেলাতে রানিপছন্দ আমের চাষ হয়ে থাকে। তবে রাজশাহী জেলায় এটি বেশি উৎপন্ন হয়। রানি পছন্দ মে মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে পাকা শুরু হয়। জুন মাসের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত বাজারে পর্যাপ্ত পরিমাণে আমদানি হয়ে থাকে।

 

 

 

 

 

 

আরও কিছু ছবিঃ

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found