x 
Empty Product

চৌষা

User Rating:  / 0
PoorBest 

অভিজাত শ্রেনীর আম। নাবি জাতের এই আম জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে পোক্ত ও পরিপক্ব হয়। জুলাই মাসের শেষ অবধি পাওয়া যায়

অভিজাত শ্রেনীর আম। নাবি জাতের এই আম জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে পোক্ত ও পরিপক্ব হয়। জুলাই মাসের শেষ অবধি পাওয়া যায়

। ফলটি ভারত, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশে অত্যন্ত জনপ্রিয়। ভারত ও পাকিস্তানের পাঞ্জাব, ভারতের উত্তর প্রদেশ এবং বিহার রাজ্যে প্রচুর পরিমাণে জন্মে। বাংলাদেশে অতি সম্প্রতি এই আমটি চাষ শুরু হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায়। আমটি মধ্যমাকৃতির, ওজন গড়ে ২৪০ গ্রাম। অনেকটা লম্বাটে ধরনের পিঠের অংশের চেয়ে পেটের অংশ তুলনামূলকভাবে স্ফীত। নিন্মাংশ বাঁক নিয়ে একেবারে শেষের দিকটা ভোতা হয়ে এসেছে। পোক্ত হবার সময় ত্বকের রং হালকা সবুজ। পাকার পর সবুজের সাথে হলুদ মেশানেরা রং। ত্বক মসৃণ, খোসা পাতলা। শাঁস মোলায়েম, অত্যন্ত রসাল এবং রং হলুদ। আমটি সুগন্ধযুক্ত এবং কড়া মিষ্টি। মিষ্টতার পরিমাণ ২৫.৩০%। মোটেই আঁম নেই। খাদ্যাংশ রয়েছে ৫৮%। গাছের উচ্চতা মাঝারি। প্রতি বছর ফল আসবে না। তবে যে বছর ফল হবে প্রচুর পরিমাণ ধরবে। নাবি জাতের ফল এবং অত্যন্ত উৎকৃষ্টমানের । এছাড়া ফলটি সংগ্রহের পর অন্তত ১৫ থেকে ২০ দিন ঘরে রাখা যাবে এসকল গুণাগুণের কারণে আমটি অত্যন্ত জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ফজলি, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাত, হিমসাগর এসকল আমের মতোই চৌষা আম ব্যাপক বাণিজ্যিক সফলতা পেয়েছে। ভারত এবং বাংলাদেশের কিছু সংখ্যক আম ব্যবস্য়ী মৌসুমের শেষের দিকে রাজশাহী শহরের সাহেব বাজারে আমটি বিক্রি হয়েছে ৫৫ থেকে ৭৫ টাকা কেজি দরে। রাজশাহী মহানগরীর শিরইল মহল্লার আব্দুল্লাহ মাসুদ শিবলরি বাড়িতে কয়েকটি চৌষা আমের গাছ রয়েছে। রাজশাহী জেলাধীন পবা থানা এলাকার দুয়ারী নামক গ্রামের চৌষা আমের একটি বাগান রয়েছে।

 

 

 

আরও কিছু ছবিঃ

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found