x 
Empty Product

আমের জুস তৈরির প্রক্রিয়া

User Rating:  / 1
PoorBest 

পাল্প তৈরি ও  জুস  উৎপাদন
পাল্প তৈরি ও জুস উৎপাদন প্রক্রিয়ার বিভিন্ন ধাপ নিচে  দেখানো হল

প্রাথমিকভাবে নির্বাচনযোগ্য ফলের বৈশিষ্ট্যসমূহ

পাল্প তৈরি ও  জুস  উৎপাদন
পাল্প তৈরি ও জুস উৎপাদন প্রক্রিয়ার বিভিন্ন ধাপ নিচে  দেখানো হল

প্রাথমিকভাবে নির্বাচনযোগ্য ফলের বৈশিষ্ট্যসমূহ




•      যেন পোকামাকড় আক্রান্ত না হয়

•      ফলের পরিপক্বতার অবস্থা

•      ফলের রং এবং আকৃতি

•      ফল যেন যান্ত্রিক আঘাতপ্রাপ্ত না হয়

•      ফলে ন্যূনতম দ্রবণীয় কঠিন বস্তুর পরিমাণ ১৭

•      ফলে pH এর মান ৩.৫ থেকে ৪.০ এর মধ্যে থাকবে

 
ফল প্রক্রিয়াজাত করার স্থানের পরিবেশঃ

কাঁচামাল প্রাপ্তির এলাকা পরিষ্কার, আলো-বাতাসপুর্ণ এবং পোকামাকড়, তীক্ষ্ণদন্ত প্রাণী (ইঁদুর) বা অন্যান্য পশু হতে মুক্ত থাকা আবশ্যক. এটি ফল ধরা থেকে খাবারের পচন এড়াতে প্রক্রিয়াজাত করার পূর্বে নষ্ট হওয়া ফলকে থেকে রক্ষা করে।

 

ধোয়া:

প্রথমে ক্লোরিন মিশ্রিত পানি দিয়ে ফলগুলোকে ধুয়ে নিতে হয়, যাতে অণুজীব ফলকে আক্রান্ত করতে না পারে। এরপর দ্বিতীয় বারে পরিষ্কার পানিতে ফলগুলোকে আবার ধুয়ে নিতে হবে যাতে অতিরিক্ত ক্লোরিন না থাকে।

ব্লাঞ্চিং বা এনজাইম নিষ্ক্রিয়করনঃ

এই কার্যক্রমের মাধ্যমে ফলের  এনজাইমকে নিষ্ক্রিয় করা হয়, ফল টিস্যুর ভিতরে বায়ুকে বের করা হয়, ফলের মধ্যেকার অনাখাঙ্কিত স্বাদ এবং গন্ধ অপসারণ করা হয়, ফলের রঙ ঠিক করা এবং পাল্প তৈরির জন্য টিস্যুকে বিগলিত করা হয়।উত্তপ্ত ফুটন্ত পানিতে ডুবানো অথবা সরাসরি বাষ্প ইনজেকশন  এ দুটি পদ্ধতি  থেকে যে কোন একটি পদ্ধতি  ব্যবহার করে ব্লাঞ্চিং করা হয়। এ পদ্ধতির  মাধ্যমে তাপমাত্রা 75 ° C এ পৌঁছানোর জন্য তাপ প্রয়োগ করা হয়। এই সাধারণত ফুটন্ত জলে 10 মিনিট, বা বাষ্প সঙ্গে 6 মিনিট প্রয়োজন. ফল  খোসা ছাড়াই ব্লাঞ্চিং  করা হয়।পিলিং বা খোসা ছাড়ানো এবং কাটাঃ

আমের ফল-ত্বককে বীজ হতে ইস্পাত নির্মিত ধারালো ছুরি দ্বারা যান্ত্রিক ভাবে পৃথক করা হয়।এরপর একটি প্লাস্টিক কন্টেইনারে করে ছাড়ানো ফল-ত্বক পাল্পিং এর জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

পাল্পিং বা পেষণঃ

মেসকার্পিক অংশকে একটি ছাকনি বা চালুনির মধ্যে দিয়ে চালনা করা হয় যাতে প্রাপ্ত ফলের অংশ ভালোভাবে পেষণের ফলে মিশে যায় এবং  এতে যে অমিশ্রিত অংশ থাকে তা আলাদা হয়ে যায়। ছাকনির সাইজ ০.৫ মিমি এর মধ্যে রাখা হয়। প্লাস্টিক কন্টেইনার থেকে বড় স্টিলের ড্রামে জুস স্থানান্তরিত করা হয়।পাস্তুরাইজেশনঃ

স্টিলের ড্রামে জুস নেওয়ার পর এতে তাপ প্রয়োগ করা হয়। ৯৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস  তাপমাত্রায় ১০ মিনিট পাস্তুরাইজেশন করা হয়। ক্রমাগত মিশ্রণটিকে নাড়ান হয়। পাস্তুরাইজেশন করলে জুস জীবাণুমুক্ত থাকে।


Additives এর ব্যবহারঃজুসের সেলফ লাইফ বৃদ্ধির জন্য সাইট্রিক এসিড, সংরক্ষণের  জন্য সোডিয়াম বেঞ্জোয়েট এবং এন্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে আসকরবিক এসিড ব্যবহৃত হয়।

সংরক্ষণঃ

গরম কন্টেইনারগুলি নিম্ন তাপমাত্রা রেখে ঠাণ্ডা  করা হয়। ঠাণ্ডা করার পর ঢাকনা পরীক্ষা করা উচিত। অবশেষে, কন্টেইনারগুলি লেবেল লাগিয়ে পরিষ্কার  শুষ্ক যায়গায় সংরক্ষণ করা হয়।

প্যাকিং :

জুস কে প্লাস্টিকের কন্টেইনারে গরম অবস্থায় সংরক্ষণ করা হয়, বায়ুরোধী করে প্যাকিং করা হয়। সব প্যাকিং উপকরণ পরিষ্কার ও নির্বীজকরে করে ব্যবহার করা আবশ্যক।

 

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found