x 
Empty Product

গৌড় নগরীর জন্ম

User Rating:  / 0
PoorBest 

ঐতিহাসিক গৌড় নগরীর জন্ম কখন্য ? এ নিয়ে নানা জনের রয়েছে নানা অভিমত। কোন কোন ঐতিহাসিকের মতে গৌড় নগর খৃষ্টপূর্ব অষ্টম শতাব্দীতে নির্মিত হয়েছিল। গৌড় প্রথমতঃ পুন্ড্রবর্ধনের একাংশ ছিল ।

ঐতিহাসিক গৌড় নগরীর জন্ম কখন্য ? এ নিয়ে নানা জনের রয়েছে নানা অভিমত। কোন কোন ঐতিহাসিকের মতে গৌড় নগর খৃষ্টপূর্ব অষ্টম শতাব্দীতে নির্মিত হয়েছিল। গৌড় প্রথমতঃ পুন্ড্রবর্ধনের একাংশ ছিল ।

পুন্ড্রবর্ধনের তুলনায় গৌড় আধুনিক নগর ছিল বলে পন্ডিদের অবিমত। খুরশীদ জাহান নূমা’র লেখক সৈনিক এলাহীবক্স আল্ হোসাইনী আ রেজাবাদীর মত হিজরী ১০১৭ বৎসর পূর্বে গৌড় শহর প্রতিষ্ঠান করা হয়। তাঁর মতে হিজরী (১৫৭৫ খ্রিঃ) শহর প্রতিষ্ঠান ২০০০ হাজার বছর অতিক্রান্ত হবার পর (১০১৭+৯৮৩) বাংলার নাযিম মুনিম খান খানই কানানের সময়ে সম্রাটআকবরের রাজত্বকালে ভয়াবহ মহামারীর কারণে গৌড় নগরী বিরাণ ভূমিতে পরিনত হয়। বিখ্যাত ইংরেজ ইতিহাস বেত্তা এইচ. বেভারীজ শহরটি প্রতিষ্ঠান কাল প্রায় ৩৯৫ খ্রিষ্টাব্দ পূর্ব অব্দ বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

                আমার ইতিহাস ভিত্তিক নানা প্রকার গ্রন্থ হতে অবগত হই যে, ঐতিহাসিক গৌড় এর সাথে বেশ কিছু নাম সংগত কারণেই এসে গেছে। যেমন গৌড় বাংলা, গৌড় বরেন্দ্র, গৌড় রাঢ ইত্যাদি ইত্যাদি। একথা সত্য যে, এককালের গৌড় দেশ ছিল সুবিশালঅ এ কারণে গৌড়ের প্রধান প্রধান নগর বা প্রাদেশিক নাগরীর নাম গৌড়ের সংগে সংযুক্ত হয়েছে। আবার অতি প্রাচীন ইতিহাস হনেত জানা যায়, গৌড় কোন কোন সময় পুন্ড্রবর্ধন ভূক্তির অধিন ছিল। অষ্ঠম শতাব্দীর ধর্ম পাল রাজার ঐতিহাসিক খালিমপুর লিপি যা চাঁপই নবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট থানা হতে উদ্ধারকৃত তাম্র শাসনই এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। পাল আমলে এ অঞ্চলের রাজধানী কোথায় ছিল, ইতিহাসে এ বিষয়ে কোন সুস্পষ্ট ধারণা দেয়নি। তবে পাল বংশীয় চতুদ্দশ বৌদ্ধ রাজা রামপাল (১০৯১ খ্রিঃ-১১০৩খ্রিঃ) রামাবতী নগরী, রামপাল নগর স্থাপন করেন। এ রামাবতীই ছিল সে সময়ের গৌড়ের রাজধানী বলে অনেক ঐতিহাসিক মনে করেন। পরবর্তীকালে সেন বংশীয় হিন্দু রাজা লক্ষণ সেনের আমলেই রামাবর্তীর নামকরণ করা হয় লক্ষণাবতী। মুসলিম ঐতিহাসিকগণ একে লখ্নৌতি বলে আখ্যায়িত করে থাকেন। তবে পাল আমলের প্রথমার্ধে জয়স্কান্ধাবারগুলি  অনেক সময় রাজধানীর মর্যাদা পেত বলে জানা যায়। সম্রাট আওরঙ্গজেবের আমলে সুবা বাংলার এ অংশটিকে গৌড় মন্ডল বলা হত বলে ডঃ নীহাররঞ্জন রায় বাঙালীর ইতিহাস গ্রন্থে উল্লেখ করে গেছেন।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found