x 
Empty Product

মহারাজপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ

User Rating:  / 1
PoorBest 

বিশালাকায় ৩ গম্বুজ বিশিষ্ট ও মসজিদটি চাঁপাই নবাবগঞ্জ সদও উপজেলার অন্তর্গত মহানন্দা নদীয়র পশ্চিম পাড়ে মহারাজপুর এলাকায় অবস্থিত। সদর রাস্তা থেকে মসজিদটি অনেকটাই ভেতওে। এ স্থাপনটিও নবাবী আমলের

বিশালাকায় ৩ গম্বুজ বিশিষ্ট ও মসজিদটি চাঁপাই নবাবগঞ্জ সদও উপজেলার অন্তর্গত মহানন্দা নদীয়র পশ্চিম পাড়ে মহারাজপুর এলাকায় অবস্থিত। সদর রাস্তা থেকে মসজিদটি অনেকটাই ভেতওে। এ স্থাপনটিও নবাবী আমলের

এবং এর গঠনশৈলী অনেকটাই চাঁপাই মহেষপুর জামে মসজিদের অনুরূপ। তবে ভেতরের অংকরণ অত্যন্ত সুন্দও ও উপরের অংশে ছাদওে কার্ণিশে বিটিত্র নকশা রযেছে। মসজিদটির দেয়াল  বেষ্টনীকে শক্তিশালি করার  জন্য রয়েছে। ৪’টি বুরুজ। বুরুজের উপরাংশে রয়েছে ফটক আকৃতি অষ্টভ’জি ছোট ছোট মিনার । উত্তর দক্ষিণেল ২’টি ইষৎ খিলানযুক্ত ছোট দরজা। এর নিলটেইল বরাবওে রয়েছে বাংলা চালার প্রতিকৃতি। এর মিহরাবের বহিরাংশে রযেছে শোভাবর্ধক আরও দুটি বহুভ’মি মিনার। এ মিনার দুটি বুরুজ মিনার অপেক্ষা  উচ্চতায়  সামান্য বড়। উচু ভুমিতে স্থাপিত ও সুউচ্চ ভবন হওয়াই এ মসজিদটি সমতল ভূমি হতে দেখলে বিশালকার দেখায়। এর তিনটি গম্বুজের মধ্যে মাফেরটি অপেক্ষাকৃত বড় এবং উত্তর দক্ষিণের ২’টি গম্বুজ ছোট। গম্বুজগুলির অঙ্গ সজ্জাও চাঁপাই মসজিদেও সাথে রয়েছে হুবহু মিল ও অপূর্ব সমন্বয়। এ মসজিদের গম্বুজগুলিও খিলানের উপর নির্মিথ এবং ড্রামের উপর স্থাপিত। গম্বুজের উপরায়শে শাপলার পাঁপড়ির অলংকারণ এবং শীর্ষদেশ কলস চূড়া বিদ্যমান।

                মসজিদটির দৈর্ঘ্য উত্তর দক্ষিণে অভ্যন্তর ভাগে ৩৩ ফুট ৬ ইঞ্চি। প্রস্থে (অভ্যন্তরভাগে পূর্ব পশ্চিমে) ১২ ফুট। এর সম্মুখে তিনটি হালকা খিলান দরজা। প্রতিটি খিলানের প্রস্থ এবং ভিত্তি দেয়ালের প্রস্থও ৩ ফুট। মসজিদ অভ্যান্তরের পশ্চিমে দেয়াল কেবলামুখি ৩টি খিলান মিহরাব রয়েছে। মধ্যবর্তি মূল মিহরাবটিই বড়। স্থাপনটির ভেতরাংশে নানা নকশা, পোড়মাটির বিচিত্র কারুকাজে পরিপূর্ণ। নানা  ডিজাইনের ফল, গুল্মলতা, সর্বোপরি বড় বড় গোলাপ ফুলের ডিজাইন যুক্ত নকশায় সুশোভিত। এছাড়া রযেছে হালকা মেরলনের অংগ সজ্জার ছোয়া। সব মিলিযে অপূর্ব ডিজাইন। ভিতরাংশে আরো রয়েছে বেশ ক’টি ক্ষুদ্র কুলুঙিগ। মসজিদটির ছোট বড় সব মিলিয়ে রয়েছে ৮টি ছোট মিনার। অপূর্ব অঙ্গ সজ্জায় সজ্জিত এ মসজিদটি সম্পূর্নটপায়গৌড়িয় ইট ও চুন সুরকির সাহায্যে তৈরী। নিসন্দেহে মসজিদটি বাংলার নবাবী শাসনের ঐতিহ্য আজো বুকে ধারণ কওে আছে। মসজিদেও কোন শিলা লিপি নেই। তবে গঠন শৈলীই প্রমাণ কওে মসজিদটি চাঁপাই এর মহেসপুর গ্রামের প্রাচীন জামে মসজিদটির সমসাময়িক হাল আমলে মসজিদের সম্মুখ ভাগ নতুনভাবে সম্প্রসারণ করা হয়েছে।  যা মসজিদটির মূল চেহারা ও অঙ্গ সোষ্টব বিকৃতি ঘটিয়েছে। তবে ব্যপক ব্যবহার ও সুষ্ঠু পরিচর্যার কারণে মসজিদটি বেশ ভাল অবস্থায় রয়েছে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found