x 
Empty Product

Articles

ফরমালিন থেকে বাঁচার উপায়

User Rating:  / 0
PoorBest 

বর্তমানে জীবনযাত্রার সঙ্গে ফরমালিনযুক্ত জিনিস যেন একচ্ছত্র বিস্তার লাভ করেছে। সবজি, মাছ-মাংস, ফলমূল সবকিছুতেই ফরমালিনের ব্যবহার যেন দিন দিন বেড়েই

বর্তমানে জীবনযাত্রার সঙ্গে ফরমালিনযুক্ত জিনিস যেন একচ্ছত্র বিস্তার লাভ করেছে। সবজি, মাছ-মাংস, ফলমূল সবকিছুতেই ফরমালিনের ব্যবহার যেন দিন দিন বেড়েই

চলেছে। বিভিন্ন প্রচারণা, আদেশ-নিষেধ থাকলেও থেমে নেই ব্যবসায়ীদের ফরমালিন ব্যবহারের দৌরাত্ম্য। ব্যবসায়ে বেশি মুনাফা লাভের আশায় ফলমূল, শাকসবজি, মাছ-মাংস যেন সহজে নষ্ট না হয়ে যায়, সেজন্যই এ ফরমালিন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এতে সমাজের একটা অংশ অধিক মুনাফা লাভ করলেও বিপরীত অংশের সঙ্গে জড়িত সাধারণ মানুষ ফরমালিনের গোগ্রাসের শিকার হচ্ছে। ফরমালিনে রয়েছে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ, যা মানুষের দেহের নানাবিদ রোগের সৃষ্টি করে থাকে।
 ফরমালিনের ক্ষতিকর দিক ঃ কার্বাইড ও ফরমালিনযুক্ত খাবার থেকে ভোক্তারা আক্রান্ত হন কিডনি, লিভার, হৃদরোগ, ক্যান্সারসহ নানা জটিল রোগে। এছাড়া মানবদেহে গ্যাষ্ট্রিক আলসার, পাকস্থলী ও অন্তনালীর প্রদাহ, ক্ষুধামন্দা, অরুচি, লিভার সিরোসিস, কিডনি ফেইলর ইত্যাদি দেখা দেয়। এমনকি লিভারে ক্যান্সারও হতে পারে। এছাড়া এর ক্ষতিকর প্রবাব পরতে পারে অস্থিমজ্জ বা বোনম্যারোর ওপর। এতে রক্তকণিকার অস্বাভাবিকতা দেখা দিতে পারে। অ্যানিমিলা বা রক্তস্বল্পতা হতে পারে, আবার লিউকেমিয়া বা বস্ন্যাড ক্যান্সারের মতো মারাত্মক রোগের দেখা দিতে পারে। গর্ভবতী মা ও শিশুর জন্য বিষয়টি আরো ভয়ঙ্কর।
 ফলের ফরমালিন ঃ ফলে যে ধরনের রাসায়নিক দেওয়া হোক না কেন যদি একটু সচেতন হোন, তবে ফল অনায়াসেই খাওয়া যায়। ফল খাওয়ার আগে এক ঘন্টা বা তার চেয়ে কিছু বেশি সময় ফল পানিতে ডুবিয়ে রাখতে হবে। এরপর তা ভালোমতো পরিষ্কার করলে খাওয়ার উপযোগি হয়ে ওঠে।
 সবজি , সবুজ শাকসবজিতে আজকাল ফরমালিনের মিশ্রণ ঘটানো হয়। এতে দূর-দূরান্ত থেকে আনা সবজি অনেকক্ষণ তাজা অবস্থায় রাখা যায় বলে সবজি ব্যবসায়ীরা এতে ফরমালিন যুক্ত করে। এসব ক্ষেত্রে সবজি রান্না করার আগে ১০ মিনিট গরম লবণ পানিতে ডুবিয়ে রাখুন। তারপর তা ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালোমতো পরিষ্কার করে রান্না করুন। এতে ফরমালিনযুক্ত সবজির হাত থেকে রক্ষা পাবেন।
 মাছ ঃ সাধারণত মাছ নদী থেকে উঠিয়ে সঙ্গে সঙ্গে রান্না করে খাওয়া যায় না বলে তা সংরক্ষণ করে বাজারজাত করতে হয়। এজন্য ব্যবসায়ীরা অন্য সময় বরফ দিয়ে মাছ সংরক্ষণ করে পরে তা সুবিধানুয়ায়ী বাজারজাত করতেন। কিন্তু বর্তমানে সেই মাছই অনেক দিন সংরক্ষণ করে টাটকা অবস্থায় বাজারজাতের জন্য এখন ফরমালিনযুক্ত করা হয়। তাই মাছ বাজার থেকে এনেই এক ঘন্টা মাছ পানিতে ডুবিয়ে রাখলে ফরমালিনের ৬০ শতাংশ কমে যায়। তাই ভালো পদ্ধতি হল ভিনেগার ও পানির মিশ্রণে ১৫ মিনিট ডুবিয়ে রাখলে ফরমালিন ১০০ শতাংশ মুক্ত হয়ে যায়। তাই তারপর মাছ সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found