x 
Empty Product
  • 1.jpg
  • 2.jpg
  • 3.jpg
  • 4.jpg
  • 5.jpg
  • 6.jpg

একটি  Up-coming Project.  ভালো জাতের অর্গানিক আম সবার কাছে পৌছে দেওয়া এবং চাঁপাই নবাবগন্জ তথা গৌড়ের পর্যটন সম্ভাবনাকে সবার কাছে তুলে ধরাই আমাদের মুল লক্ষ। গত ১২ই ফেব্রুয়ারী ২০১৩ থেকে আমরা ই-সেবা দিয়ে যাচ্ছি। প্রাথমিক পর্যায়ে আমরা শুধুমাত্র প্যাকেট জাত আম সরাবরাহ করছি। শিঘ্রই আম যাদুঘর, পর্যটন ক্যাম্প সহ অন্যান্য সুবিধাগুলো চালু হবে ইনশাআল্লাহ...


নিউজ আপডেট : আমের সর্বশেষ খবর

:

 

অসাধু আম ব্যাবসায়ীদের খপ্পড়ে বাগান মালিকগন

User Rating:  / 0
PoorBest 

অর্থলোভী আম ব্যবসায়ীরা (ব্যায়ড়াল নামে খ্যাত) অধিক মুনাফা লাভের জন্য ভারত থেকে চোরাই পথে আসা কার্র্লটার নামক হরমোন আম গাছের গোড়ায় ব্যবহার করায়

অর্থলোভী আম ব্যবসায়ীরা (ব্যায়ড়াল নামে খ্যাত) অধিক মুনাফা লাভের জন্য ভারত থেকে চোরাই পথে আসা কার্র্লটার নামক হরমোন আম গাছের গোড়ায় ব্যবহার করায়

আমের রাজধানী নামে বিখ্যাত শিবগঞ্জ উপজেলার শত শত বিঘা আম বাগানের আম গাছ মরে যাচ্ছে। যার ফলে আম বাগান মালিকদের পালিত আম গাছ নষ্ট হচ্ছে এবং বাগান মালিকরা পড়েছে বিপদে।
উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে আম বাগান মালিকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, কোটি পতি আম ব্যবসায়ী অর্থাৎ ব্যায়ড়ালগণ আম বাগান মালিকদের আর্থিক সংকটের সুযোগ নিয়ে ৫ থেকে ১০বছরের জন্য আম বাগান লিজ নেয়। প্রকৃতির নিয়মানুযায়ী আম বাগানে এক বছর আম ফল ধরলে পরের বছর ধরেনা। আর এ জন্যই  আম বাগানের ক্ষেত্রে  অফ ইয়ার ও অন ইয়ার কথাটি চালু রয়েছে উপজেলায়।
এ নিয়মের  ব্যতিক্রম ঘটিয়ে অধিক মুনাফা লাভের জন্য আম ব্যবসায়ী বা ব্যায়ড়ালরা  প্রতি বছর আম ফল ধরানোর জন্য ভারত থেকে চোরাইপথে আসা ভারতীয় কার্লটার নামক হরমোন আম গাছের একেবারে গোড়ায় দিচ্ছে। ফলে প্রতি বছর আম গাছে আম ফল ধরছে, অপর দিকে গাছের নতুন পাতা গজানো বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।
এই ভাবে  ২/৩ বছর কার্লটার নামক ভারতীয় এক ধরনের হরমোন ব্যবহার করার ফলে গাছের পাতার শুকিয়ে যাচ্ছে এবং এক বছরের মধ্যে গাছ মরে যাচ্ছে।
এভাবেই ক্রমান্বয়ে আমের রাজধানী বিখ্যাত শিবগঞ্জ উপজেলার আম বাগান সয়লাভ হয়ে যাচ্ছে। এই ভাবে আম ব্যবসায়ী বা ব্যায়ড়ালদের দ্বারা প্রতারিত হচ্ছেন শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুর  ইউনিয়নাধীন বাবলাবোনা গ্রামের কাউসার আলি মাস্টারের ছেলে  ডাঃ বারি।
তিনি দৈনিক রাজবার্তাকে জানান, ৪ বছর আগে আর্থিক সংকটে পড়ে একই ইউপির  ফারুকের কাছে  রাধানগর মৌজার ২বিঘা আম বাগান ৪ বছরের জন্য সাড়ে ৪ লাখ টাকায় বিক্রী করি। অধিক মুনাফা লাভের আশায় ফারুক আম গাছের গোড়ায় ভারতীয় কার্লটার হরমোন ব্যবহার করাই অধিক আম ফল ধরে এবং ৩ বছরের শেষের দিকে আম গাছের ডগা ও পাতা  শুকাতে শুরু করলে তিনি উপজেলা কৃষি অফিসারকে দেখিয়ে জানতে পারেন যে, ভারতীয় কার্লটার হরমোন ব্যবহার করাই এ অবস্থা হয়েছে। এ ব্যাপারে  ফারুকের বিরুদ্ধে গ্রাম্য শালিস  হয়। কিন্তু  ফারুক তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করেন।
একই ভাবে প্রতারনার শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে কালিগঞ্জ গ্রামের হাজারী খাসের হাট কবিরাজ টোলার আলতাফ, চাঁন শিকারীর ওবাইদুল, পারচৌকার জাহাঙ্গীর, দাদনচকের মনিরুল ইসলাম (গানু মিয়া) সহ আরো অনেকে।
এব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাঃ মাহমুদুল ফারুক বলেন, ভারতীয় কার্লটার হরমোন ব্যবহার সম্পন্ন অবৈধ এবং এটি বন্ধ করার জন্য আমরা প্রচারসহ জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছি। এমনকি উপজেলা সমন্বয় কমিটির মিটিংয়ে এটি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, অল্প পরিমান কার্লটার হরমোন ব্যবহার করলে জৈব সার ও গোবর প্রয়োগ করে প্রতিকার হতে পারে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found

গ্রাহক সেবা

দেশের প্রায় সকল বিভাগে রয়েছে আমাদের তালিকাভুক্ত সম্মানিত ডিলার। এছাড়াও "কুরিয়ার সাভিস" সেবা আছে এমন যেকোন জায়গায় আম পাঠানো সম্ভব।

আমাদের ডিলার তালিকা

 

: ছবি ঘর :

:: খবর ::

বাজারে নতুন আম badge

বাজারে কোন আম আসেনি। আসছে আগামী মে মাস হতে পাওয়া যাবে।

বাজারে শেষ আম badge

বাজারে কোন আম আসেনি। আসছে আগামী মে মাস হতে পাওয়া যাবে।

মোবাইলে তথ্য পেতে আপনার নাম ও মোবাইল নাম্বার টি পাঠিয়ে দিন

সাথেই থাকুন

নিজেকে যুক্ত করুন আমাদের সাথে......

আমের সব খবর পৌছে যাবে সময় মত......