x 
Empty Product
  • 1.jpg
  • 2.jpg
  • 3.jpg
  • 4.jpg
  • 5.jpg
  • 6.jpg

একটি  Up-coming Project.  ভালো জাতের অর্গানিক আম সবার কাছে পৌছে দেওয়া এবং চাঁপাই নবাবগন্জ তথা গৌড়ের পর্যটন সম্ভাবনাকে সবার কাছে তুলে ধরাই আমাদের মুল লক্ষ। গত ১২ই ফেব্রুয়ারী ২০১৩ থেকে আমরা ই-সেবা দিয়ে যাচ্ছি। প্রাথমিক পর্যায়ে আমরা শুধুমাত্র প্যাকেট জাত আম সরাবরাহ করছি। শিঘ্রই আম যাদুঘর, পর্যটন ক্যাম্প সহ অন্যান্য সুবিধাগুলো চালু হবে ইনশাআল্লাহ...


নিউজ আপডেট : আমের সর্বশেষ খবর

:

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম বাগানে মুকুলের সমারোহ

User Rating:  / 0
PoorBest 

ফাল্গুন মাস আসার সাথে সাথেই চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম গাছগুলোতে মুকুলের সমারোহে ভরপুর হয়ে উঠেছে। বিস্তৃত আম বাগানগুলোতে শুধু মুকুল আর মুকুল। বাগান

ফাল্গুন মাস আসার সাথে সাথেই চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম গাছগুলোতে মুকুলের সমারোহে ভরপুর হয়ে উঠেছে। বিস্তৃত আম বাগানগুলোতে শুধু মুকুল আর মুকুল। বাগান

মালিকরা বৃষ্টির জন্য অপেক্ষা করার ঠিক মুহূর্তে গত শনিবার সন্ধ্যা থেকে রোববার বিকেল পর্যন্ত একটানা টিপটিপ বৃষ্টিতে গাছগুলো সতেজ হয়ে উঠেছে এবং আমের গুটি ধরার জন্য অপেক্ষা করছে। কৃষি বিভাগের মতে বৃষ্টির পর রৌদ্রোজ্জ্বল আবহাওয়া থাকলে এবার আমের বাম্পার ফলনের রেকর্ড সৃষ্টি হবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক আবুল কালাম জানান, বর্তমানে জেলায় ৫টি উপজেলায় ২৪ হাজার হেক্টর জমিতে আমবাগান এবং প্রায় সাড়ে ১৮ লক্ষ গাছ রয়েছে। আম বাগানগুলোতে এবার প্রচুর মুকুল ধরেছে, সেই সাথে আম চাষীরা দীর্ঘদিন ধরে বাগান পরিচর্যায় ব্যস্ত রয়েছে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবছর প্রায় ২ লক্ষ মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে। কানসাটের আম ব্যবসায়ী আনসারুল হক জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম ব্যবসায়ীরা বাগান মালিকদের কাছ থেকে কয়েক বছরের জন্য আমবাগান কিনে সাধারণত ব্যবসা বাণিজ্য করে থাকেন। কোন বছর আমের উৎপাদন একটু খারাপ হলেও পরের বছর পুষিয়ে নেয়ার আশায় এভাবে আমবাগানগুলো কিনে থাকেন। আম চাষীরা দীর্ঘ দু'সপ্তাহ যাবত বৃষ্টির জন্য অপেক্ষা করছিল, গতকাল শনিবারের বৃষ্টিতে আমচাষীদের ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলেও বৃষ্টিপাত দীর্ঘস্থায়ী হলে আমের মুকুল নষ্ট এবং আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ব্যাহত হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিশাল বরেন্দ্র অঞ্চল জুড়ে গত ১০ বছর ধরে ইতোমধ্যেই অনেক বড় বড় আমবাগান গড়ে উঠেছে। এবছর ঐসব আমবাগানে প্রচুর মুকুল ধরেছে। মুকুলের ধরন দেখে বাগান মালিকরা আশা করছেন এবার আমের বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের সবচাইতে বড় আমের বাজার কানসাট, রহনপুর, ভোলাহাটে বাহিরের আম ব্যাপারীরা বাগান মালিকদের সাথে যোগাযোগ করছে এবং আড়ত করার জন্য টাকা বিনিয়োগ করতে শুরু করেছে। কয়েক বছর ধরে প্লাস্টিকের র‌্যাকের ভিতরে আম প্যাকিং করে বিভিন্ন মোকামে পাঠানোর প্রবণতা থাকলেও শাহাবাজপুর ও ভোলাহাটে বাঁশ দিয়ে আমের ঝুড়ি তৈরী করার কাজ শুরু হয়ে গেছে। এছাড়াও আম বাগানগুলোতে টং তৈরী করে পাহাড়া বসানো হয়েছে যাতে করে আমের মুকুল কেউ নষ্ট করতে  না পারে। দাইপুকুরিয়ার শফিকুল ইসলাম জানান, মুকুলে যাতে কোন মহা বা ছত্রাক জাতীয় রোগবালাই না লাগে এজন্য কীটনাশক স্প্রে করে পরিচর্যা চালিয়ে যাচ্ছে।

কানসাটের রাজার বাগান, ভোলাহাটের কাজী জালালের আমবাগান ঘুরে দেখা গেছে, বেশির ভাগ গাছেই প্রচুর মুকুল ধরেছে। ছত্রাজিতপুরের আম ব্যবসায়ী হারুনুর রশিদ জানান, এ বছর যেভাবে গাছে গাছে মুকুল ধরেছে আবহাওয়া তারতম্য না ঘটলে চাঁপাইনবাবগঞ্জে গত ৫ বছরের আমের উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যাবে।

চারঘাট (রাজশাহী) : মৌ-মৌ গন্ধে মুখরিত হয়ে উঠেছে চারঘাট উপজেলাসহ রাজশাহী অঞ্চল। চারঘাট বাঘা এলাকায় চলতি মওসুমে আমের বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর প্রমাণ মেলে আমের রাজধানী খ্যাত রাজশাহী অঞ্চলের চারঘাট-বাঘা উপজেলার বড় বড় আম বাগান দেখে। আর এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগনোর জন্য আম বাগানের পরিচর্যায় ব্যাপক মনোযোগী হয়ে উঠেছেন আম বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা। এই সময় আম চাষীরা  আমের বাগানে স্প্রে করা নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। আমের ফলন যাতে ভাল হয় সেই জন্য গাছে মুকুল আসার আগেই আম বাগানের মালিকরা পরিচর্যা শুরু করে দেয়। শুরু হয়েছে গাছের ক্ষতিকর পোকা দমনে বিষ প্রয়োগের পালা। উত্তরাঞ্চলের রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাড়া অন্যান্য জেলাগুলোতেও কম বেশি আম পাওয়া যায় তবে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার আম খেতে সুস্বাদু। আমের জন্য বিখ্যাত রাজশাহী বিভাগের  রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা। চারঘাট বাঘা  উপজেলার প্রায়  অঞ্চলে নাম না জানা হরেক রকমের আমের গাছ রয়েছে মাঠের পর মাঠ বিঘার পর বিঘা।। এখানকার আম খেতে সুস্বাদু ও মিষ্টি হওয়ায় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে সৌখিন মানুষরা আসে রাজশাহীর আম কিনতে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found

গ্রাহক সেবা

দেশের প্রায় সকল বিভাগে রয়েছে আমাদের তালিকাভুক্ত সম্মানিত ডিলার। এছাড়াও "কুরিয়ার সাভিস" সেবা আছে এমন যেকোন জায়গায় আম পাঠানো সম্ভব।

আমাদের ডিলার তালিকা

 

: ছবি ঘর :

:: খবর ::

বাজারে নতুন আম badge

বাজারে কোন আম আসেনি। আসছে আগামী মে মাস হতে পাওয়া যাবে।

বাজারে শেষ আম badge

বাজারে কোন আম আসেনি। আসছে আগামী মে মাস হতে পাওয়া যাবে।

মোবাইলে তথ্য পেতে আপনার নাম ও মোবাইল নাম্বার টি পাঠিয়ে দিন

সাথেই থাকুন

নিজেকে যুক্ত করুন আমাদের সাথে......

আমের সব খবর পৌছে যাবে সময় মত......