x 
Empty Product
Thursday, 01 March 2018 22:26

হঠাৎ শিলাবৃষ্টিতে আম-লিচুর মুকুলের ক্ষতি

Written by 
Rate this item
(0 votes)

ফাল্গুনের মাঝামাঝিতে হঠাৎ শিলাবৃষ্টি হয়েছে নওগাঁ জেলার বিভিন্ন এলাকায়। শিলাবৃষ্টিতে আম ও লিচুর মুকুলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। 

 

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে প্রায় আধাঘণ্টা ধরে চলা এ শিলাবৃষ্টিতে জেলার সাপাহার, পোরশা ও পত্নীতলা উপজেলার বেশ কিছু এলাকায় ক্ষতির পরিমাণ সবচেয়ে বেশি।

শিলার আঘাতে অনেক স্থানে মুকুল থেঁতলে নষ্ট হয়েছে, ঝরেও গেছে অনেক স্থানে। এ সময় আমের মুকুলে হালকা পানি পেলে ফলন ভালো হয়। কিন্তু সোমবার বিকেলে বৃষ্টির সঙ্গে প্রায় ১শ’ গ্রাম ওজনের শিলাও পড়েছে। ফলে নষ্ট হয়েছে অনেক মুকুল। 

পত্নীলতা উপজেলার দিবর ইউনিয়নের রূপগ্রামের আম চাষি সোহেল রানা, বাংলানিউজকে জানান, এ মৌসুমে তার প্রায় ২০ বিঘার আমবাগানের অধিকাংশ গাছেই মুকুল এসেছে। শিলাবৃষ্টিতে যার ৮০ শতাংশই নষ্ট হয়েছে। 

পার্শ্ববর্তী উপজেলা পোরশার লিচু চাষি সারোয়ার জানান, এবার তিন বিঘা জমিতে তিনি চায়না জাতের লিচু চাষ করেছেন। কিন্তু শুরুতেই শিলাবৃষ্টির কারনে তার অনেক ক্ষতি হয়েছে। এ সময় লিচুর মুকুলের মধ্যে মধু থাকে। শিলাবৃষ্টির কারণে মুকুল নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি মধুও নষ্ট হয়েছে। লিচুর ফলন নিয়ে বেশ চিন্তায় পড়েছেন তিনি। নওগাঁয় হঠাৎ শিলাবৃষ্টিতে আম-লিচুর মুকুলের ক্ষতি

নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মনোজিত কুমার বাংলানিউজকে জানান, এখনই ক্ষতির সঠিক পরিমাণ নিরূপণ করা সম্ভব নয়। তবে যেসব মুকুলে শিলা পড়েছে সেসব মুকুলে আর ফল আসবে না। 

তিনি আরও বলেন, এ বছর জেলায় ১২ হাজার ৬৭০ হেক্টর জমিতে আম এবং ২২১ হেক্টর জমিতে লিচু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যেহেতু এখনও শতভাগ গাছে মুকুল আসেনি তাই ক্ষতি খুব বেশি হওয়ার কথা নয়।

Read 1065 times

Leave a comment

Make sure you enter the (*) required information where indicated. HTML code is not allowed.